লায়ন কাজী আলী আকবর জাসেদ আন্তর্জাতিক সেবা সংগঠন লায়নিজমে শুরু করেছিলেন লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং লিবার্টির সদস্য হিসেবে ২০১৪ সালে এবং ২০১৫-২০১৬ ও ২০১৬-২০১৭ সেবা বর্ষে পরপর দুইবার জয়েন সেক্রেটারী ও ২০১৭-২০১৮ সালে ১ম বার ক্লাব সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ২য় মেয়াদে আবারো সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ সবাই ভালবেসে সভাপতি নির্বাচিত করেন ২০১৮-২০১৯ সেবা বর্ষে আগামী ৩০ জুন মেয়াদ পূর্ণ করবেন, সাথে সাথে তিনি লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং লির্বাটির আগামী ২০১৯-২০২০ সালের জন্য আইপিপি এবং ক্লাব এক্টিভিটিস ও কমিউনিকেশন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। শত প্রতিকূলতা থাকলেও তিনি সিনিয়র ক্লাবের আরসি জেডসিসহ সহযোগিতাকারী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন, সাথে সাথে যাঁরা ক্লাব ছেড়ে চলে গেছেন তিনি তাঁদের জন্য কষ্ট বেদনা পেয়েছেন কারণ তিনি সবাইকে মন থেকে ভালবাসতেন। অন্য ক্লাব থেকে অনেক লোভনীয় লাভনীয় অফার পেলেও কখনো ক্লাব ছেড়ে যান নি। তিনি নিজের নীতি সিদ্ধান্তে অটুট ছিলেন, যেমনটি সীতাকুণ্ড সমিতির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক থাকাকালে সীতাকুণ্ড এশোসিয়েশন নামক তৎকালীন নতুন সংগঠনের লোভনীয় অফার প্রত্যাখান করেছিলেনন, কারণ ২০০৭ সালে সীতাকুণ্ড সমিতি চট্টগ্রাম প্রতিষ্ঠাতেও অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিলিলেন। অন্যদিকে সীতাকুণ্ডের বিবর্তন ক্লাবের পরপর তিনবার নির্বাচিত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন পরবর্তীতে চতুর্থবার আবারো দায়িত্ব নিতে অনুরোধ করলে বিনয়ের সহিত প্রত্যাখ্যান করের। আজোও পুরাতন ভালবাসার সংগঠনগুলো আঁকড়ে ধরে পরে আছি এবং যথাযথ মূল্যায়ন ও শ্রদ্ধা সম্মান পাচ্ছেন। মানবতার সেবার কাজে আগামীতে সবার দোয়া ও সহযোগিতা চাই এবং সম্মুখপানে অগ্রসর হতে চান। তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন।